ভূমি দস্যু ও মাদক ব্যবসায়ী ফিরোজ হাতে জিম্মি সাধারণ মানুষ

ভূমি  দস্যু ও মাদক ব্যবসায়ী ফিরোজ হাতে জিম্মি সাধারণ মানুষ

ভূমি দস্যু ও মাদক ব্যবসায়ী ফিরোজ হাতে জিম্মি সাধারণ মানুষ

📅30 April 2019, 12:16

প্রতিনিধি: কথায় আছে “জোর যার মুল্লক তার । রাজধানী উত্তরার কুখ্যাত ভূমি দস্যু ও মাদক ব্যবসায়ী ফিরোজের হাতে জিম্মি সাধারণ মানুষ।সাধারন মানুষের পৈত্রিক এবং ক্রয়কৃত জমিতে কুখ্যাত ভূমি দস্যু ফিরোজ লোভ-লালসায় দিন দিন বাড়ছে ।অধিকাংশ সাধারণ মানুষের জমির প্রতি কুখ্যাত ভূমি দস্যু তার সঙ্গীয় বাহিনী নিয়ে নিরীহ মানুষের উপর অত্যাচার জুলুম, প্রাণে মারার হুমকি দিয়ে জোর পূর্বক দখল করে আসছে ভূমি দস্যুরা। তেমনি একজন ভূক্তভোগী নাজমা উরপে নাজু ( ), জানায় আমার পৈত্রিক সূত্রে মালিকানাধীন ভূমি দস্যুগন জোর পূর্বক নিজের স্বার্থ আদায় করতে দীর্ঘ কয়েক বৎসর যাবৎ জমি দখলে গেলে আমাকে খুন করে ফেলবে হুমকি প্রদান করে।
শফিক মাহাজন অসুস্থ্য হয়ে গেলে জমিতে দেখাশুনার দায়িত্ব দেন তার পালিত মেয়ে নাজুর কাছে নাজু কে কুখ্যাত ভূমি দস্যু ও মাদক ব্যবসায়ী ফিরোজের বাহিনী বিভিন্ন পটুকল ব্যবহার করে হুমকি দিয়ে আসছে। এই ভূমি দস্যুরা বিভিন্ন সময়ে রাজনৈতিক প্রভাব দেখিয়ে নীরিহ মানুষের উপরে নির্যাতন প্রভাব বিস্তার করে। সম্বল টুকু ফিরে পেতে প্রভাবশালীদের দ্বারে দ্বারে ঘুরেও কোন কুল –কিনারা পাচ্ছেন না।
এ সমস্ত ভূমি দস্যু হাতে বিভিন্ন সময়ে শালিশের মাধ্যমে যুক্তিহীন মানুষের হাতে মোটা অংকের কালু টাকা দিয়ে বিভিন্ন সময়ে জমি দখল করে ও বালু ভরাট করে বিভিন্ন প্রজেক্টের নাম করিয়া মুনাফা হাতিয়ে নিচ্ছে।
সেখানের সরকারের ভাবমূর্তি ও সুনাম খ্যাতি নষ্ট করে কিছু অসাধু চক্রের ব্যবসায়ীরা নিজেদের স্বার্থ উদ্ধারের লক্ষ্যে জমি দখল সহ প্রাণে মারার হুমকি দিয়ে আসছে নাজু কে। গত শনিবার নাজুর বাড়িতে গনমাধ্যম কর্মীগন উপস্থিত হলে ভূক্তভোগী কান্নায় ভেঙ্গে পরে জানায় যে, কখ্যাত ভূমি দস্যু ফিরোজ নেতৃত্বে দালাল চক্ররা জমি ছেড়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে আসছিল।
নাজুর তার পৈত্রিক জমি ফিরে পাওয়ার জন্য গেলে কিন্তু ফিরোজ সম্পতি দখল করার পায়তারা সৃষ্টি করে আসছে। উক্ত কুখ্যাত ভূমি দস্যু ও মাদক ব্যবসায়ী ফিরোজ বাহিনীর নামে একাধিক জিডি দক্ষিনখান থানায় রয়েছে বলে এলাকাবাসী জানায়
এসব অভিযোগের বিষয়ে জানতে চেয়ে ফিরোজের এর মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ওই জমিতো আমার নয়, আমি বাঁধা দেব কেন? । তবে আমার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ করা হয়েছে তা সত্য নয়। একথা বলে এড়িয়ে যান।

Share this article:

No Comments

No Comments Yet!

You can be first one to write a comment

Leave a comment